মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৭:০০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ শিরোনাম :
‘‘কীনব্রিজের দক্ষিণ প্রান্তের অবৈধ স্ট্যান্ড অবিলম্বে অপসারণ করুন’’

‘‘কীনব্রিজের দক্ষিণ প্রান্তের অবৈধ স্ট্যান্ড অবিলম্বে অপসারণ করুন’’

সিলেট ইউকে ডেস্ক:
সদ্য সমাপ্ত সিলেট-৩ আসনের উপ-নির্বাচনে নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিবকে গণ-সংবর্ধনা প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিলেটের সদর দক্ষিণ এলাকার ন্যায়সংগত দাবি আদায় ও সুষম উন্নয়ন তরান্বিত করার লক্ষ্যে গঠিত অরাজনৈতিক সংগঠন সদর দক্ষিণ নাগরিক কমিটি, সিলেট। গত (২২ সেপ্টেম্বর) বুধবার রাতে অনুষ্ঠিত সংগঠনের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির জরুরী সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
সভার প্রস্তাবে কীনব্রিজের দক্ষিণপ্রান্তে গড়ে উঠা অবৈধ স্ট্যান্ডসমুহ অপসারণের দাবি জানিয়ে বলা হয়, ‘এরফলে এলাকাবাসীর স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে এবং পথচারীরা যাতায়াতে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন।’ প্রস্তাবে এ ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলা হয়, ‘এর প্রতিকারে অবিলম্বে আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীকে বলিষ্ঠ পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। অন্যথায় অতিষ্ঠ জনগণ পরবর্তীতে কোন প্রতিকার করলে এর দায়ভার সংশ্লিষ্টদের নিতে হবে।’
সভার অপর এক প্রস্তাবে সরকারি গেজেটের মাধ্যমে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সীমানা বর্ধিতকরণ সংক্রান্ত নিকার বৈঠকের সিদ্ধান্ত ঘোষিত হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করে বলা হয়, ‘কিন্তু কার্যত এতে সুরমা নদীর দক্ষিণ পারের বাসিন্দাদের প্রত্যাশা পূরণ হয়নি। জেলা প্রশাসনের বৈষম্যমুলক সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে যে বর্ধিত সীমানা ঘোষিত হয়েছে, তাতে সাবেক সদর উপজেলার অন্য অংশের তুলনায় দক্ষিণ সুরমার জনগণ পূর্বের ন্যায় আবারও বঞ্চিত হয়েছেন। বতর্মান দক্ষিণ সুরমা উপজেলার আরো এলাকা সিটি কর্পোরেশনে অন্তর্ভুক্তির লক্ষ্যে সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ের দৃষ্টি আকর্ষণ এবং গণ-সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে সদর দক্ষিণ নাগরিক কমিটি, সিলেট শিগগিরই বৃহত্তর পরিসরে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি ঘোষণা করবে।’
সভায় অন্য এক প্রস্তাবে নির্মাণাধীন সিলেট-ঢাকা ৬ লাইন মহাসড়ক নির্মাণের অর্থ ছাড়করণের ব্যবস্থা নেয়ায় সিলেট-১ আসনের এমপি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেনের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন এবং কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে স্বলতম সময়ের মধ্যে সড়কের নির্মাণকাজ শুরু করার দাবি জানানো হয়। সভার অপর এক প্রস্তাবে নগরির কিনব্রিজের নীচে, সাধুরবাজার, ডগেরপাড়, জিঞ্জির শাহ মাঝার সংলগ্ন বাঁশপালা মার্কেট, কদমতলি বালুর মাঠ ইত্যাদি চিহ্নিত স্থানসহ ২৫, ২৬ ও ২৭নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে সংঘটিত অপরাধ নির্মূলে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানানো হয়।
সংগঠনের সভাপতি আলহাজ্ব শেখ মোঃ মকন মিয়ার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আজম খানের পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন আলহাজ্ব সৈয়দ মকবুল হোসেন মাখন, আলহাজ্ব গোলাম হাফিজ লোহিত, আলহাজ্ব আব্দুল মতিন, চঞ্চল মাহমুদ ফুলর, গোলাম হাদী ছয়ফুল, আলহাজ্ব মোঃ ফরিদুর রহমান, শাহ আহমদুর রব, জাহাঙ্গীর খান, দিলওয়ার হোসেন রানা, মোঃ ছয়েফ খান, নজরুল হোসেন, আব্দুল ওয়াহিদ, শাহ ইমাদ উদ্দিন নাসিরী, নুরুল ইসলাম সুমন, আব্দুল হাই আজাদ বাবলা, ওয়ারিছ আলী মেম্বার, এমএইচ নিজাম, সাহাদ উদ্দিন দুলাল, অরিন্দম দাস হাবলু, খলিলুর রহমান, শাহ মোঃ এখলাছ মিয়া, আফতাবুল কামাল রেকি, আব্দুস শহীদ মাস্টার, সেলিম আহমদ শেমিম, আব্বাস উদ্দিন জালালী, আব্দুল হান্নান জুয়েল, জুবায়ের আহমদ, ইশতিয়াক আহমদ, নিজামুল হক নিজাম প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি

 118 বার পঠিত

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply




© All rights reserved © SYLHETUKNEWS.COM
Design BY Web Home BD
SUKNEWS