মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৫:২৭ অপরাহ্ন

সর্বশেষ শিরোনাম :
কুলাউড়ায় কিশোরীর আত্মহত্যা তাহিরপুরের হত্যা মামলার আসামি ভৈরব থেকে গ্রেপ্তার দোয়ারাবাজারে ফসলি জমিতে বিষ দিয়ে হাস-মুরগ হত্যা দোয়ারাবাজারে চতুর্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের চেষ্টা জবানবন্দি দিতে রাজী না হওয়ায় আরও ৩ দিনের রিমান্ডে কনস্টেবল টিটু স্বামী-সন্তান ছেড়ে যুবকের সঙ্গে পালানোর পর রাস্তায় গৃহবধূর লাশ, প্রেমিক আটক স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূজার আনুষ্ঠানিকতায় অংশ নেয়ার আহবান মেয়র আরিফের ছেলে হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে পুলিশ ফাঁড়ির সামনে মা’র অনশন রায়হান হত্যাকারীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক ফরিদ আহমেদ তারেক এর নেতৃত্বে পূজামণ্ডপ পরিদর্শন
শরীরে অতিরিক্ত আঘাতে রায়হানের মৃত্যু হয়েছে, ফরেনসিক বিভাগ

শরীরে অতিরিক্ত আঘাতে রায়হানের মৃত্যু হয়েছে, ফরেনসিক বিভাগ

শরীরে অতিরিক্ত আঘাতের কারণেই রায়হান আহমদের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিলেট এমএজি ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. শামসুল ইসলাম। বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টেবার) রায়হানের দ্বিতীয় ময়না তদন্ত শেষে তিনি সাংবাদিকদের এমনটি বলেন।

ডা. শামসুল ইসলাম বলেন, রায়হানের শরীরে অনেকগুলো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। তাকে প্রচন্ড মারধর করা হয়েছে। এসব কারণেই তার মৃত্যু হতে পারে। তবে ময়না তদন্তের রিপোর্ট এলে এ ব্যাপারে বিস্তারিত বলা যাবে।

এদিকে দ্বিতীয়বার ময়নাতদন্ত শেষে আবারও তার মরদেহ দাফন করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টার দিকে মরদেহ দাফন করা হয়।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সজিব আহমেদ, মেজবাহ উদ্দিন, পিবিআই তদন্ত কর্মকর্তা মাহিদুল ইসলাম, স্থানীয় কাউন্সিলর মখলেছুর রহমান কামরানের উপস্থিতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)-এর একটি দল আখালিয়া এলাকার নবাবী মসজিদের পঞ্চায়েতি গোরস্থান থেকে রায়হানের মরদেহ উত্তোলন করে।

এরপর ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ নিয়ে আসা হয় ওসমানী হাসপাতালের মর্গে। রায়হানের দ্বিতীয়বার ময়না তদন্তের জন্য তিন সদস্যে একটি বোর্ড গঠন করা হয়। ফরেনসিক বিভাগের প্রধান, ওসমানী মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ডা. শামসুল ইসলামকে প্রধান করে এ মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়।

বোর্ডের অন্য সদস্যরা হলেন- প্রভাষক ডা. দেবেস পোদ্দার, প্রভাষক ডা. আবদুল্লাহ আল হেলাল।

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) সিলেট জেলা পুলিশ সুপার খালেকুজ্জামান বলেন, জেলা প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে রায়হানের মরদেহ তোলা হয়েছে। মরদেহ তোলার পর সুরতহাল করা হয়। এরপর ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে দ্বিতীয়বার ময়নাতদন্ত শেষে পুণরায় তার দাফন করা হয়।

 

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply




© All rights reserved © SYLHETUKNEWS.COM
Design BY Web Home BD
SUKNEWS