বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০৩:৩৯ পূর্বাহ্ন

সিলেটে নারী চিকিৎসককে ছুরিকাঘাতের দুই ঘন্টার মধ্যে ‘ছিনতাইকারী’ আটক

সিলেটে নারী চিকিৎসককে ছুরিকাঘাতের দুই ঘন্টার মধ্যে ‘ছিনতাইকারী’ আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক: বান্ধবিকে রেলস্টেশনে বিদায় জানিয়ে ফেরার পথে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসক  ডা. আফসানা তাসনিম মম (২৫) এখন শঙ্কামুক্ত। শুক্রবার (৪ অক্টোবর) রাত ৯টার দিকে সিলেট রেলওয়ে স্টেশনের পাশে  ডা. আফসানাকে ছুরিকাঘাত করা হয়। এতে তার মুখ ও জিহ্বান অনেকাংশ কেটে যায়। হাতেও আঘাতপ্রাপ্ত হন। মম ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। ঘটনার পর পরই ছিনতাইকারী ধরতে অভিযানে নামেন দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশের এসআই রিপন দাসের নেতৃত্বে পুলিশের একটি চৌকস টিম । অভিযানের দুই ঘন্টা পার খোজারখলা এলাকার কাজির বাজার ব্রিজের দক্ষিণ পাশ থেকে নাজিমুল ইসলাম ওরফে রাজুকে (২৩) আটক করতে সক্ষম হন তারা। আটক রাজু কিশোরগঞ্জের ইটনা থানার মাতব্বর আলীর ছেলে।

 

এসআই রিপন দাশ জানান, রেলস্টেশন এলাকায় ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের এক চিকিৎসক ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন এমন সংবাদের পর পরই ওসি স্যারের নির্দেশে আমি এবং এসআই শিপলু, এসআই স্নেহাশীষ সহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে যাই। সেখান থেকে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করে খবর পাই রেলস্টেশনের লিংক রোডে মাছ বিক্রেতাকে ছুরিকাঘাতে হত্যাকারি সেই ছিনতাইকারি রাজু কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পেয়ে সে এলাকায় আবারও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসক ডা. আফসানা তাসনিম মমকে ছুরিকাঘাতের ঘটনা সেই ঘটিয়েছে বলে প্রথমিক ভাবে আমরা নিশ্চিত হই। এর পর আমরা তাকে আটকের জন্য অভিযান শুরু করলে প্রায় দুই ঘন্টার মাথায় থাকে ধরতে সক্ষম হই। তাকে আটকের পর তার দেহ তল্লাাশি করে একটি রক্তমাখা ছুরি ও একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করি। আটক রাজুকে জিজ্ঞাসাবাদে ছিনতাইয়ের জন্য নারী চিকিৎসককে ছুরিকাঘাতের কথা স্বীকার করেছে।

এ ঘটনায় শনিবার (৫ অক্টোবর) দক্ষিণ সুরমা থানায় আহত ডা. আফসানার স্বামী ডা. মোহাম্মদ তানভীর চৌধুরী বাদী হয়ে দ্রুত বিচার আইনে মামলা দায়ের করেছেন। আটক নাজিমুল ইসলাম ওরফে রাজু (২৩) মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে শনিবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। পুলিশের দাবি, রাজু পেশাদার ছিনতাইকারী।

 

দক্ষিণ সুরমা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খায়রুল ফজল জানান, আটক রাজু জিজ্ঞাসাবাদে ছিনতাইয়ের জন্য নারী চিকিৎসককে ছুরিকাঘাতের কথা স্বীকার করেছে। শনিবার তাকে আসামী করে দ্রুত বিচার আইনে মামলা হয়েছে। এছাড়া সে দক্ষিণ সুরমা থানার আরেকটি মামলায় অভিযুক্ত হয়ে দীর্ঘ দিন হাজতবাস করে।

 

জানা যায়, পুজোর ছুটিতে বাড়ি ফেরা বান্ধবী ডা. প্রিয়াংকা দত্তকে চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনে তুলে দিতে শুক্রবার রাতে নগরীর কদমতলী এলাকার সিলেট রেলওয়ে স্টেশনে যান ডা. আফসানা তাসনিম মম। বান্ধবীকে স্টেশনে পৌঁছে রিকশায় করে ফেরার সময় স্টেশন এলাকায়ই তার পথরোধ করে এক ছিনতাইকারী।

 

এসময় মম’র ব্যাগ ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিতে চায় ছিনতাইকারী। এতে তিনি বাধা দিলে ছিতাইকারী তার মুখে ও হাতে ছুরি দিয়ে আঘাত করে। এসময় মম’র চিৎকারে পথচারীরা এগিয়ে এসে ছিনতাইকারীকে ঘিরে ধরেন। তবে কৌশলে সে পালিয়ে যায়। পরে মমকে উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে যান পথচারীরা।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply




© All rights reserved © SYLHETUKNEWS.COM
Design BY Web Home BD
SUKNEWS